স্লিমিং সেন্টার্স

স্লিমিং সেন্টার্স

প্রশ্নঃ স্লিমিং সেন্টারে কি হয় ? সেখানে প্রথমে লোকেদের ওজন কমে গেলেও পরে বেড়ে যায়। এটা সত্যি কি ?

উত্তরঃ গত কয়েক বছরের মধ্যে স্লিমিং সেন্টার্স এবং হেল্থ সেন্টার ব্যাপক মাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে।  সাধারণ মানুষেরা এই সেন্টারগুলি সম্পর্কে বিশেষ কিছুই জানেন না।  যখন কোন ব্যক্তি নিজের ওজন কমানোর উদ্দেশ্য এই সেন্টারগুলিতে যান, তখন সর্বপ্রথম তাঁর ওজন মাপা হয়।  এরপর মোবিলাইজিং মেশিন, হীটিং প্যাড, ষ্টীম এবং সাউনার সাহায্যে তাঁর বি.এম. আর. বৃদ্ধি করে দেওয়া হয়।  আমরা সবাই জানি যে, বি.এম. আর. পাওয়ার সাথে ক্যালোরী নষ্ট হতে শুরু করে।  এখানে বিভিন্ন প্রকার কষ্টের মাধ্যমে ক্লায়েন্ট এর শরীর থেকে ঘামের রূপে প্রায় এক লিটার তরল পদার্থ বার করা হয়ে থাকে.. সুতারং এই ঘন্টা ধরে কষ্ট করার  পর যদি কোন ব্যক্তি তার ওজন এক কিলো কম দেখতে পান, তাবে তাঁর খুশীর ঠিকানা থাকে না।  অনেক স্লিমিং সেন্টার্স নিজেদের বিজ্ঞাপনে ফোটোগ্রাফী ট্রিকেরও ব্যবহার করে থাকে। তারপর খাদ্য বিশেষজ্ঞ ক্লায়েন্টকে কম ক্যালোরী যুক্ত খাবারের একটি চার্ট বানিয়ে দেন।  বাড়ি ফিরেই ক্লায়েন্ট গ্রাহক অনেকটা জল খেয়ে নেন, ফলে তাঁর শরীরের তরলের অভাব পূরণ হয় এবং ওজন আবার আগের মত হয়ে পড়ে।  তারপর ডায়েট চার্ট পালন করে এক সপ্তাহ এ এক কিলো ওজন কমিয়ে ফেলেন। পরের সপ্তাহে তিনি যখন আবার স্লিমিং সেন্টারে যেতে থাকেন, ততদিন এই প্রক্রিয়া চলতে থাকে।  একবার আকাঙ্খিত ওজন পাওয়ার পর ক্লায়েন্ট সেখানে যাওয়ার বন্ধ করে দেন এবং কয়েক মাসের মধ্যে ওজন পুনরায় বৃদ্ধি পেতে থাকে।

প্রশ্নঃ স্লিমিং সেন্টার খাদ্য তালিকায় পরিবর্তন না করেই ওজন কমানো হয় কি ?

উত্তরঃ  না.. এটা সম্পূর্ণ ভুল কথা। খাদ্য তালিকায় পরিবর্তন আনা খুবই প্রয়োজন। স্লিমিং সেন্টারে খাদ্য বিশেষজ্ঞ নিজেদের লোকেদের ওজন কমানোর জন্য খাদ্য তালিকায় পবির্তন করার পরামর্শ দেন.. কিন্তু রোগীদেরে বলা হয় যে, খাদ্য তালিকায় পরিবর্তন আনার কোন প্রয়োজন নেই.. মেশিনের সাহয্যে তাঁদের ওজন আপনা থেকেই কমে যাবে।  জনসাধারণও খুশী হয়ে যান.. কারণ ডায়েট এর ফলে সত্যিই তাঁদের ওজন হ্রাস পায়.. মেশিনের জন্য নয়।

 

 

 

প্রশ্নঃ স্লিপিং সেন্টারে যাওয়া বন্ধ করলেই পুনরায় ওজন বৃদ্ধি পায় কি ?

উত্তরঃ প্রায় দেখা গেছে যে, স্লিমিং সেন্টারে যাওয়া বন্ধ করে  দিলেই ওজন আবার বৃদ্ধি পেতে শুরু করে.. কারণ লোকেরা ঠিক মতন ক্যালোরী গণনা করতে জানেন না।  ফলে, তাঁরা বাড়ির সাধারণ খাবার খেতে শুরু করেন এবং ওজন  পুনরায় বৃদ্ধি পায়।

 

প্রশ্নঃ মেশিনের মাধ্যমে ওজন কম হয় কি ?

উত্তরঃ হ্যাঁ, সত্যি-সত্যিই মেশিনের সাহায্যে ওজন কম হয়.. কিন্তু এক কিলোর বেশী কম হয় না।  এটা আপনার শরীর টোনিং এর কাজ করে । এর সাহায্য শরীর গরম হয়.. ফলে মেটাবোলিক রেট বৃদ্ধি পায় এবং ক্যালোরী কমতে থাকে। মনে করুন যে, আপনি একশ ক্যালোরী খরচ করেছেন.. যার সাহায্যে দশ গ্রাম ওজন কমেছে।  এই কারণে ওজনে খুব বেশী হেরফের হবে না।

 

প্রশ্নঃ মোনো ডায়েট বলতে কি বোঝায় ?

উত্তরঃ এক ধরণের খাদ্য পদার্থ গ্রহণকে  ‘মোনো ডায়েট’ বলা হয়ে থাকে। যখন কোন ব্যক্তি দুই-তিন রকম খাদ্য গ্রহণ না করে একই রকম  খাদ্য গ্রহণ করেন, তখন তাঁর ক্ষিধে সম্পূর্ণ মেটে না।  এছাড়া একই ধরণের খাবার খেলে শরীর সম্পূর্ণ পুষ্টি পায় না.. তাই খাদ্যে বিভিন্নতা থাকা আবশ্যক।

 

প্রশ্নঃ ফ্লেচরিজম কি ?

উত্তরঃ ওজন কমানোর জন্য এটি হচ্ছে একটি সুনিশ্চিত প্রক্রিয়া।  আমেরিকার হোরেক ফ্লাচার ১৮৯৮ সালে স্থূলতা সম্পর্কে গভীর পরীক্ষ-নিরীক্ষা করার  পর কিছু বিষয় নির্ধারিত করেছিলেন।  সেগুলি হলঃ

  • খাবার ততক্ষন পর্যন্ত চেবান, যতক্ষন না সেটি পেষ্ট হয়ে ভেতরে চলে যায়।
  • ক্ষিধে পেলেই কিছু-না-কিছু খান।
  • চিবোনোর আগে প্রতিটি খাদ্যের স্বাদ আস্বাদন করুন।
  • ক্রোধ, চিন্তা বা দুঃখের সময় খাবার খাবেন না। খাওয়ার সময় এই সব বিষয়ে চিন্তা করবেন না বা আলোচনাও করবেন না।